ধামরাইয়ে নিজ কক্ষ থেকে  নির্মাণ শ্রমিক দম্পতির মরদেহ উদ্ধার

ধামরাই প্রতিনিধিঃ ঢাকার ধামরাইয়ে নিজ কক্ষ থেকে স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের ধারণা পারিবারিক কলহের জেরে স্ত্রীকে হত্যা করে আত্মহত্যা করেছে স্বামী।

বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ধামরাইয়ের নান্নার ইউনিয়নের গোপালপুর সিলেটপাড়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন- ওই এলাকার মুনছুর আলীর ছেলে জুয়েল (২২) ও তার স্ত্রী মুনমুন। মুনমুন টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর উপজেলার হাটুভাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা। তাদের বিয়ে হয়েছিল গত দুই বছর আগে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, জুয়েল ও মুনমুন স্বাভাবিকভাবেই রাতে ঘুমাতে যান। আজ সকালে অনেক বেলা হয়ে গেলেও তারা ঘুম থেকে না ওঠায় এলাকাবাসী তাদের ডাকাডাকি করে। ডাকাডাকি করার পরেও তাদের সাড়া না পাওয়া দরজা ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে স্থানীয়রা। পরে ঘরের ভিতর বিছানার ওপর তাদের মরদেহ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। মুনমুনের গলায় আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা করে আত্মহত্যা করেছে জুয়েল।

ধামরাই থানার পুলিশ পরিদর্শক দীপক চন্দ্র সাহা জানান, স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পরে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

Comments are closed.

     এ বিভাগের আরো সংবাদ